web site hit counter ভ্রম সমীকরণ - Ebooks PDF Online
Hot Best Seller

ভ্রম সমীকরণ

Availability: Ready to download

রাসেল এক স্কুলপড়ুয়া কিশোর ছেলে। কিন্তু আর দশটা ছেলের চেয়ে আলাদা সে। ভীষণ রকম মেধাবী ও তুখোড় বুদ্ধিমান। আইকিউ টেস্টে দেখা গেল, আইনস্টাইন-হাইজেনবার্গ পর্যায়ের বুদ্ধিমত্তা তার। রাসেলের জীবন বদলে গেল সেদিন, যেদিন সে বুঝতে পারল, এই প্রখর বুদ্ধিমত্তা ছাড়াও আরেকটি ক্ষমতা আছে তার, ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা। ভবিষ্যতে ঘটা ঘটনা আগেভাগে দেখে ফেলে সে মানসপটে। তারপর নিজের মতো করে বদলেও রাসেল এক স্কুলপড়ুয়া কিশোর ছেলে। কিন্তু আর দশটা ছেলের চেয়ে আলাদা সে। ভীষণ রকম মেধাবী ও তুখোড় বুদ্ধিমান। আইকিউ টেস্টে দেখা গেল, আইনস্টাইন-হাইজেনবার্গ পর্যায়ের বুদ্ধিমত্তা তার। রাসেলের জীবন বদলে গেল সেদিন, যেদিন সে বুঝতে পারল, এই প্রখর বুদ্ধিমত্তা ছাড়াও আরেকটি ক্ষমতা আছে তার, ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা। ভবিষ্যতে ঘটা ঘটনা আগেভাগে দেখে ফেলে সে মানসপটে। তারপর নিজের মতো করে বদলেও দিতে পারে সেই ঘটনাপ্রবাহ। কিন্তু ভবিষ্যৎ বদলে দেবার পরিণতি কি মঙ্গলজনক হয়? নাকি ডেকে আনে আরও বড় কোন বিপদ? বড় হবার সাথে সাথে রাসেল আবিষ্কার করতে লাগল, ভবিষ্যৎ বদলাতে গিয়ে কিভাবে সময়ের ফাঁদে পড়ে গেছে সে!


Compare

রাসেল এক স্কুলপড়ুয়া কিশোর ছেলে। কিন্তু আর দশটা ছেলের চেয়ে আলাদা সে। ভীষণ রকম মেধাবী ও তুখোড় বুদ্ধিমান। আইকিউ টেস্টে দেখা গেল, আইনস্টাইন-হাইজেনবার্গ পর্যায়ের বুদ্ধিমত্তা তার। রাসেলের জীবন বদলে গেল সেদিন, যেদিন সে বুঝতে পারল, এই প্রখর বুদ্ধিমত্তা ছাড়াও আরেকটি ক্ষমতা আছে তার, ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা। ভবিষ্যতে ঘটা ঘটনা আগেভাগে দেখে ফেলে সে মানসপটে। তারপর নিজের মতো করে বদলেও রাসেল এক স্কুলপড়ুয়া কিশোর ছেলে। কিন্তু আর দশটা ছেলের চেয়ে আলাদা সে। ভীষণ রকম মেধাবী ও তুখোড় বুদ্ধিমান। আইকিউ টেস্টে দেখা গেল, আইনস্টাইন-হাইজেনবার্গ পর্যায়ের বুদ্ধিমত্তা তার। রাসেলের জীবন বদলে গেল সেদিন, যেদিন সে বুঝতে পারল, এই প্রখর বুদ্ধিমত্তা ছাড়াও আরেকটি ক্ষমতা আছে তার, ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা। ভবিষ্যতে ঘটা ঘটনা আগেভাগে দেখে ফেলে সে মানসপটে। তারপর নিজের মতো করে বদলেও দিতে পারে সেই ঘটনাপ্রবাহ। কিন্তু ভবিষ্যৎ বদলে দেবার পরিণতি কি মঙ্গলজনক হয়? নাকি ডেকে আনে আরও বড় কোন বিপদ? বড় হবার সাথে সাথে রাসেল আবিষ্কার করতে লাগল, ভবিষ্যৎ বদলাতে গিয়ে কিভাবে সময়ের ফাঁদে পড়ে গেছে সে!

30 review for ভ্রম সমীকরণ

  1. 4 out of 5

    Zahidul

    All that we see or seem, is but a dream within a dream- Edgar Allan Poe - ভ্রম সমীকরণ - রাসেল, বলা চলে এক বিস্ময়বালক। ছোটবেলা থেকে তুখোড় আইকিউ এর অধিকারী সে। তাই স্কুলের প্রতিটি পরীক্ষাতেই প্রথম স্থান অধিকার করে নেয় সে।এমনকি এক অলিম্পিয়াডে তার আইকিউ এর পরিমান দেখে আয়োজকরা অনুষ্ঠান বাতিলের চিন্তাভাবনাও শুরু করে দেয়। এক দীর্ঘ পরীক্ষার শেষে রাসেল তার বাবার সাথে ট্রেনে চড়ে, উদ্দেশ্য মামার বাড়ি। কিন্তু সেই ট্রেন যাত্রায় ঘটে এক দুর্ঘটনা, যা রাসেলের জীবন ওলট পালট করে দেয়। এখন কিভাবে ঘটে সেই দ All that we see or seem, is but a dream within a dream- Edgar Allan Poe - ভ্রম সমীকরণ - রাসেল, বলা চলে এক বিস্ময়বালক। ছোটবেলা থেকে তুখোড় আইকিউ এর অধিকারী সে। তাই স্কুলের প্রতিটি পরীক্ষাতেই প্রথম স্থান অধিকার করে নেয় সে।এমনকি এক অলিম্পিয়াডে তার আইকিউ এর পরিমান দেখে আয়োজকরা অনুষ্ঠান বাতিলের চিন্তাভাবনাও শুরু করে দেয়। এক দীর্ঘ পরীক্ষার শেষে রাসেল তার বাবার সাথে ট্রেনে চড়ে, উদ্দেশ্য মামার বাড়ি। কিন্তু সেই ট্রেন যাত্রায় ঘটে এক দুর্ঘটনা, যা রাসেলের জীবন ওলট পালট করে দেয়। এখন কিভাবে ঘটে সেই দুর্ঘটনা আর আর ফলে রাসেলের জীবন কিভাবে পরিবর্তন হয়ে যায় তা জানতে হলে পড়তে হবে লেখক মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পীর লেখা নোভেলা "ভ্রম সমীকরণ"। - "ভ্রম সমীকরণ" বইটি ৯৬ পেইজের একটি নোভেলা। বইয়ের প্লট শুরু থেকেই বেশ আকর্ষণীয় এবং একেবারে এক বসায় শেষ করার মতো। গল্প বলার স্টাইল এবং লেখনশৈলী মেদহীন এবং ঝরঝরে, তাই গল্পের ভিতরে কোন জটিল টপিক নিয়ে আলোচনা হলেও সেগুলো বুঝতে তেমন সমস্যা হয়নি। "ভ্রম সমীকরণ" বইয়ের পুরো প্লট রাসেলকে কেন্দ্র করে তাই আর কোন চরিত্র তেমন একটা ফোকাস পায়নি। বইতে বেশ কিছু সায়েন্টিফিক টার্ম এবং সেগুলোর বিস্তারিত ব্যাখ্যা ভালো লেগেছে। যদিও বইয়ের সেরা দিক এর ফিনিশিং, তার সাথে আমার অত্যন্ত পছন্দের এক সিনেমার থিমেটিক মিল থাকায় ব্যাপারটা আগেই ধারণা করে ফেলেছিলাম। "ভ্রম সমীকরণ" বইয়ের প্রোডাকশন বইয়ের সাইজের তুলনায় খারাপ না। তবে আমার কপিতে বাঁধাই খুবই আটসাট করে করা ছিল, যার ফলে পুরো বইতে পৃষ্ঠাগুলো ছিল ঢেউ খেলানো, এ কারনে পড়তে কিছুটা সমস্যা হচ্ছিলো। বইয়ের প্রচ্ছদ কাহিনির সাথে মানানসই। বইয়ের বানান এবং প্রিন্টিং মিস্টেকও বলা যায় খুব একটা চোখে পড়েনা। এক কথায়, এক বসায় শেষ করার মতো চমৎকার একটি সাই ফাই থ্রিলার নোভেলা হচ্ছে ভ্রম সমীকরণ। যাদের ছোট পরিসরের সাই ফাই বা থ্রিলার বই পছন্দ তাদের জন্য বইটি রিকমেন্ড থাকলো।

  2. 5 out of 5

    পিয়েল রায় পার্থ

    ⚈ স্পয়লার-ফ্রি রিভিউ— ❝আমরা যা দেখি, যা অনুভব করি, পুরোটাই কেবল স্বপ্নের ভেতর আরেকটি স্বপ্ন মাত্র।❞ ভ্রম সমীকরণ বইটি নিয়ে আলোচনা করার পূর্বে কিছু কথা বলে নিতে চাই। মনে হতে পারে ৯৫ পৃষ্ঠার এই ছোট্ট নভেলাতে আদতে কী রয়েছে? পূর্ণরূপে তৃপ্তি দিতে পারবে বইটি? আমি বলব, রয়েছে অনেক কিছু অন্ততপক্ষে চিন্তার করার মতো বিশাল প্লট, ব্যাখা করার মতো বিষয় এবং সবশেষে ছোট্ট গল্পে সুন্দর টুইস্ট। যদিও টুইস্ট যতটা আমাকে আকর্ষণ করেনি তার চেয়েও দিগুণ যে বিষয় করেছে সেটা হচ্ছে ভ্রম বা সাইকেডেলিক! প্রথমে যে বিষয়টি ⚈ স্পয়লার-ফ্রি রিভিউ— ❝আমরা যা দেখি, যা অনুভব করি, পুরোটাই কেবল স্বপ্নের ভেতর আরেকটি স্বপ্ন মাত্র।❞ ভ্রম সমীকরণ বইটি নিয়ে আলোচনা করার পূর্বে কিছু কথা বলে নিতে চাই। মনে হতে পারে ৯৫ পৃষ্ঠার এই ছোট্ট নভেলাতে আদতে কী রয়েছে? পূর্ণরূপে তৃপ্তি দিতে পারবে বইটি? আমি বলব, রয়েছে অনেক কিছু অন্ততপক্ষে চিন্তার করার মতো বিশাল প্লট, ব্যাখা করার মতো বিষয় এবং সবশেষে ছোট্ট গল্পে সুন্দর টুইস্ট। যদিও টুইস্ট যতটা আমাকে আকর্ষণ করেনি তার চেয়েও দিগুণ যে বিষয় করেছে সেটা হচ্ছে ভ্রম বা সাইকেডেলিক! প্রথমে যে বিষয়টি গল্পের শুরুতে আসবে সেটা হচ্ছে প্রডিজি। প্রডিজি কী? তুলনামূলকভাবে সাধারণ মানুষ থেকে কয়েক ধাপ এগিয়ে থাকা অথবা সরল বাক্যে বলতে গেলে যাদের আইকিউ লেভেল ১৫০+ থাকে সেইসব ব্যক্তিবর্গকে প্রডিজি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। অনেকটা গড গিফটেড বলা যায় তাদের। তো উক্ত উপন্যাসে এই প্রডিজির যোজন ঘটেছে। ঘটেছে বলতে লেখক ঢুকিয়েছেন এমনি অনেক কিছু যেটা নিয়ে পাঠক ভাবতে বসে যেতে পারবেন, নিজের সাথে ঘটে যাওয়া কোনো বাস্তব অভিজ্ঞতার সাথে মেশাতে পারবেন। অনুভব করতে পারবেন লেখকের দেওয়া বর্ণনার সাথে। শুধু কী এতটুকুই? আসলে লেখক এতটুকুতে ক্ষান্ত দিতে চাননি বলে পুরো নভেলাতে টাইম প্যারাডক্স, বুটস্ট্র‍্যাপ প্যারাডক্স, টাইম পারসেপশন, লুসিড ড্রিম, মেমরি রিজেনেরেটর, নিউরোনেটর ইত্যাদি অনেক বিষয়বস্তু যুক্ত করে অল্পতে এত সুন্দর গল্প রচয়িতা করেছেন দেখে বেশ চমকপ্রদ হলাম। এইরকম প্লটে তখনই লেখা সম্ভব যদি কখনও লেখকের সাথে এইরকম ঘটনা ঘটে থাকে তবেই, আমার সূক্ষ্ম ধারণা এইরকম ঘটেছে। যেমনটা আমার নিজের সাথেও ঘটেছে। বিশ্বাস করতে না চাইলে বইটি পড়ে এরপরে নাহয় নিজেও বলবেন আসলে এইরকম ঘটনা ঘটে বা ঘটেছিল কিনা। তবে এইখানে বাস্তবতা যতটুকু আছে কল্পনার আশ্রয়ও ঠিক ততটুকু রয়েছে। আপনি একইসাথে গল্প ও রিসার্চ করা বিষয়বস্তু দুইভাবে ভাগ করে নিতে পারবেন। একদিকে প্লটে রোমাঞ্চিত যেমন হবেন অন্যদিকে প্লটের কারণে শিক্ষণীয় কিছু বিষয় নিয়ে জানতেও পারবেন। একটি বই থেকে এর থেকে আর বেশিকিছু কখনোই আশা করা যায় না। আর এইরকম বই পড়তে আমি সর্বদা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি, আমি শিওর আপনি যদি একজন সাই-ফাই ও সাইকোলজি নিয়ে আগ্রাসী পাঠক হয়ে থাকেন তাহলে এই বই আপনার জন্য পারফেক্ট হবে। ➲ আখ্যান— রাসেল এক স্কুলপড়ুয়া কিশোর ছেলে। কিন্তু আর দশটা ছেলের চেয়ে আলাদা সে। ভীষণ রকম মেধাবী ও তুখোড় বুদ্ধিমান। আইকিউ টেস্টে দেখা গেল, আইনস্টাইন-হাইজেনবার্গ পর্যায়ের বুদ্ধিমত্তা তার। রাসেলের জীবন বদলে গেল সেদিন, যেদিন সে বুঝতে পারল, এই প্রখর বুদ্ধিমত্তা ছাড়াও আরেকটি ক্ষমতা আছে তার, ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা। ভবিষ্যতে ঘটা ঘটনা আগেভাগে দেখে ফেলে সে মানসপটে। তারপর নিজের মতো করে বদলেও দিতে পারে সেই ঘটনাপ্রবাহ। কিন্তু ভবিষ্যৎ বদলে দেবার পরিণতি কি মঙ্গলজনক হয়? নাকি ডেকে আনে আরও বড় কোন বিপদ? বড় হবার সাথে সাথে রাসেল আবিষ্কার করতে লাগল, ভবিষ্যৎ বদলাতে গিয়ে কীভাবে সময়ের ফাঁদে পড়ে গেছে সে! ➤ পাঠ প্রতিক্রিয়া ও পর্যালোচনা— ❝মিথ্যে বলার সময় মানুষ প্রায়ই ওপরে, ডানে তাকায়। সত্য বলার সময় তাকায় বামে।❞ কী বুঝলেন? কখন লক্ষ করেছেন এই বিষয়টি? যে কখন কোনদিকে তাকালে সেটা সত্য বা মিথ্যাতে রূপান্তরিত হয়ে যায়? কখনও নিজেকে লক্ষ না করতে পারলেও সামনে বসা যে-কোনো মানুষকে দিয়ে ট্রাই করিয়ে নিতে পারেন। সে আপনার শত্রু কিংবা মিত্র যেকেউ হোক না কেন। প্রথমে বলে নিচ্ছি আমি প্লট বা চরিত্র নিয়ে বিন্দুমাত্র ঘাটাঘাটি করে ব্যবচ্ছেদ করব না। কারণ অহেতুক সময় নষ্ট, বইটি এমনিতে পড়লে আপনি নিজেও প্লট ও চরিত্রের ক্রিয়াকলাপ সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যাবেন। ঠিক বেঠিকের ঊর্ধ্বে হচ্ছে গল্পের প্লট আদতে কতটা প্রভাবিত করেছে এবং ভালো লাগা দিয়েছে সেটাই মুখ্য বিষয়। শুধু গল্প কেমন সেটা যাচাই করে একটি বইকে ভালো বা খারাপ ট্যাগ দেওয়া যথার্থ কোনোভাবেই না। ব্যালেন্স থাকে সবকিছুতে তাই সেটাকে উন্মোচিত করতে হয়। গল্পের শুরুটা বেশ ভালো, ছোটো প্লট কিন্তু লেখকের বর্ণনাভঙ্গি এত দ্রুত আর সাবলীল যে টপাটপ শুধু পৃষ্ঠা উলটিয়ে যেতে বাধ্য থাকবেন। গল্পের মধ্যে সহজে ডুবে যেতে পারবেন, কারণ কনসেপ্ট বিষণ ইন্টারেস্টিং। ছোট্ট করে বললে পূর্বাভাস! হ্যাঁ, গল্পের বিষয়বস্তু পূর্বাভাস হলেও ঘটনার মোড় নিয়েছে রোলার কোস্টারের মতো। স্থির হয়ে বসে থাকতে পারবেন না, পুলকিত হবেন। প্রতি অধ্যায় শেষে পরের অধ্যায় কী হবে সেটা জানার আকাঙ্ক্ষা তৈরি হবে। লেখনশৈলী বেশ ভালো, বর্ণনাভঙ্গি সাবলীল। আর সাবলীল না হলে আসলে এতসব টার্ম খুব সহজে ব্যাখা দিতে কখনও সক্ষম হতেন না। কিন্তু লেখক এই বিষয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন, বড়ো বড়ো কিছু টার্ম খুব সহজে ব্যাখা দিয়েছেন দেখে ভালো লাগছে। কোনো প্রকার ইতস্তত বা থমকে যাওয়া খেয়াল হয়নি। আর যে কনসেপ্টে লেখেছেন আমি চাচ্ছি এইটা নিয়ে আরও কাজ হোক, অন্যান্য দেশে এই কনসেপ্ট নির্ভর অনেক সিরিজ ও সিনেমা থাকলেও আমাদের দেশে এই কনসেপ্ট নিয়ে অগ্রসরতা বেশ কম মনে হয়েছে। সাহস করে হয়তো কেউ এগিয়ে আসতে চাইছে না। লেখক সে চেষ্টা করেছেন দেখে ভালো লাগল। উপরিক্ত অনেক টার্মের সাথে লেখক ড্রাগ, ডার্ক ওয়েবসাইট, প্রোগ্রামিং নিয়ে সহজে কিছু ছোটো ছোটো ব্যাখা দিয়ে গিয়েছেন। অর্থাৎ প্লট বেশ শক্তিশালী। এক প্লটে এতকিছু ভাবা যায় তাও এত ছোটো বইতে। বেশ ক্রিয়েটিভ। শেষটা চমকপ্রদ! হ্যাঁ এইটাই আসলে চাচ্ছিলাম, কারণ এইভাবে যদি শেষ না হতো তাহলে অপূর্ণতা থেকে যেত। ওইযে বললাম, বাস্তবতা ও অবাস্তবতার সামঞ্জস্যতা। এইখানে লেখক সাকসেস। তিনি যেটা চেয়েছেন সেটা পেরেছেন। সমীকরণ মেলাতে পেরেছেন দেখে ভালো লাগল। ছোটো বইয়ের এতবড়ো রিভিউ দেখে অনেকে ভড়কে যাবেন। আসলে আমি চাইছি আরও কিছু নিয়ে মন উজার করে লেখতে কিন্তু পারব না কারণ স্পয়লার। এরপরেও প্লট আর চরিত্রায়ন এড়িয়ে গিয়েছে। চরিত্রের ঘনঘটা অনেক হয়েছে, স্পেশাল ও অপ্রতিম অনেক চরিত্রের প্রবেশ ঘটেছে। প্রোটাগনিস্টের পাশাপাশি আরও দুইজন ছেলে মেয়ে যাদের অনায়াসে ভালো লেগে গিয়েছে। নাম বলতে চাচ্ছি না, সাসপেন্স থাকুক। সবমিলিয়ে দারুণ নভেলা। একটি নভেলাতে ঠিক যতটুকু থাকা দরকার ততটুকু রয়েছে। মেদহীন ঝরঝরে লেখাতে পাঠক আকৃষ্ট হতে বাধ্য। ➢ লেখক, সম্পাদনা, বানান, প্রচ্ছদ, মলাট, বাঁধাই— মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী ভাইয়ের লেখা এইটি দ্বিতীয় বই। প্রথম বই পড়া না হলেও দ্বিতীয় বই দিয়ে আমার যাত্রার শুরু বেশ ভালোভাবে। শুধু বলব অল্পতে যেভাবে গুছিয়ে প্লট লেখেছেন এবং টার্ম গুলো যুক্ত করে সাজিয়েছেন তার জন্য সাধুবাদ জানাচ্ছি। এই কনসেপ্টে আরও নভেলা চাই, আসলে নভেলা না নভেল চাই। এইবার বিশাল কিছু লেখে ফেলুন ভাই, আশা করছি ভালো কিছু উপহার দিতে পারবেন। সম্পাদনা ভালো হয়েছে এই নিয়ে কিছু বলার নেই। তবে বানানের ব্যাপারে আরেকটু যত্নশীল হলে ভালো হয়। প্রথম অধ্যায়তে অনেক বানান ভুল রয়েছে। পুরো উপন্যাস জুড়ে টুকটাক বানান ভুলের সমারহ ঘটেছে। আশা করছি এইসব ভুল ঠিকঠাক করে নেওয়া হবে। প্রচ্ছদ করেছেন শৈল্পিক প্রচ্ছদের কারিগর লর্ড জুলিয়ান ভাই। উনার প্রচ্ছদে একপ্রকার শিল্প থাকে যেটা আমি সবসময় বলি। ভ্রম সমীকরণে মূল গল্পের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ভালো প্রচ্ছদ তৈরি করেছেন। পছন্দ হয়েছে, কনসেপ্টের সাথে বেশ মানানসই। চিরকুটের বইয়ের প্রোডাকশ নিয়ে আদতে কখনও কিছু বলার থাকে না। বেশ ভালো, সুন্দর, দারুণ। ছোটো বইয়ের মলাট থেকে বাঁধাই আর কাগজের মান পরিতৃপ্তি দেই সবসময়। ➠ বই : ভ্রম সমীকরণ | মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী ➠ জনরা : সায়েন্স ফিকশন ➠ প্রথম প্রকাশ : ডিসেম্বর ২০২০ ➠ প্রচ্ছদ : জুলিয়ান ➠ প্রকাশনী : চিরকুট ➠ মুদ্রিত মূল্য : ১৫০ টাকা মাত্র

  3. 5 out of 5

    Ajwad Bari

    Solid 4 stars! ভ্রম সমীকরণ ৯৬ পৃষ্ঠার একটি সাইন্স ফিকশন থ্রিলার উপন্যাসিকা। মূলত সাই ফাই থ্রিলার হলেও সাইকোলজিকাল থ্রিলার সাব-জনরাতেও বইটিকে রাখা যাবে। উপরের ছোট কাহিনী সংক্ষেপটাই আমার কাছে বেশ আগ্রহ জাগানিয়া মনে হয়েছিল এবং সেটুকু পড়েই আসলে বইটা অর্ডার দিয়ে দেই। ছোট এই বইটির প্লট একদম শুরু থেকেই বেশ আকর্ষণীয় আর জমজমাট প্রথম থেকেই থ্রিল আর সাসপেন্স ধরে রেখে ছোট পরিসরে বেশ শক্তিশালী একটা প্লট গড়েছেন লেখক। কাহিনী বিন্যাস আর এক্সিকিউশনও একদম যথার্থ ছিল। দক্ষ হাতে লেখক গল্পটাকে এগিয়ে নিয়ে গে Solid 4 stars! ভ্রম সমীকরণ ৯৬ পৃষ্ঠার একটি সাইন্স ফিকশন থ্রিলার উপন্যাসিকা। মূলত সাই ফাই থ্রিলার হলেও সাইকোলজিকাল থ্রিলার সাব-জনরাতেও বইটিকে রাখা যাবে। উপরের ছোট কাহিনী সংক্ষেপটাই আমার কাছে বেশ আগ্রহ জাগানিয়া মনে হয়েছিল এবং সেটুকু পড়েই আসলে বইটা অর্ডার দিয়ে দেই। ছোট এই বইটির প্লট একদম শুরু থেকেই বেশ আকর্ষণীয় আর জমজমাট প্রথম থেকেই থ্রিল আর সাসপেন্স ধরে রেখে ছোট পরিসরে বেশ শক্তিশালী একটা প্লট গড়েছেন লেখক। কাহিনী বিন্যাস আর এক্সিকিউশনও একদম যথার্থ ছিল। দক্ষ হাতে লেখক গল্পটাকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। আর গল্পটাও পুরোটা সময় জুড়ে একটা দারুণ গতিতে এগিয়ে গিয়েছে। পূর্বে মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পীর কোন বই পড়া না থাকলেও লেখকের বেশ ভালো মানের কিছু সাই ফাই ছোট গল্প পড়ার সৌভাগ্য হয়েছিল। তাই উনার লেখার হাত যে ভালো , বিশেষ করে সাই ফাইটা যে উনি দারুণ লিখেন তা জানা ছিল। আগেই বলেছি ৯৬ পৃষ্ঠার বইটি পুরোটা সময় একটি দারুণ গতিতে এগিয়েছে। আর তা সম্ভব হয়েছে লেখকের ঝরঝরে, মেদহীন ও প্রাঞ্জল বর্ণনাভঙ্গীর কারণে। কাহিনীর প্রয়োজনে বইতে বিভিন্ন সময় কিছু জটিল বৈজ্ঞানিক বিষয় নিয়ে আলোচনা উঠে আসলেও এবং প্লট মাঝে একটু জটিল দিকে মোড় নিলেও একবারের জন্যও বুঝতে অসুবিধে হয়নি বা পড়ার মাঝে কোথাও আঁটকে যেতে হয়নি। জটিল বৈজ্ঞানিক বিষয়গুলোকে লেখক খুব সাবলীলভাবে গল্পে এনেছেন এবং সবকিছু বেশ সহজভাবে ব্যাখ্যা করেছেন। আমার মতে সাবলীল উপস্থাপনার কারণে কোন পাঠকেরই বিষয়গুলো বুঝতে বেগ পেতে হবে না তেমন। বিজ্ঞান ও সাইকোলজি সম্পর্কিত অনেক ইন্টারেস্টিং ফ্যাক্টসও জানতে পেরেছি বইটা থেকে। গল্পের ছলে পাঠককে বুটস্ট্র‍্যাপ প্যারাডক্স, টাইম পারসেপশন, ডি এম টি , রেম স্লিপ, ইত্যাদি ইন্টারেস্টিং বিষয় নিয়ে বেশ কিছু জানিয়েছেন লেখক। ৯৬ পৃষ্ঠার বইটির চরিত্রায়ন নিয়ে খুব বেশি কিছু বলার নেই, আসলে দরকারও নেই তেমন। গল্পের মুল চরিত্র বিস্ময়বালক রাসেলকে ঘিরেই পুরো বইটা এগিয়েছে, তাই বাদ বাকি চরিত্র কম ফোকাস পেলেও যার যার জায়গায় ঠিকঠাক ছিল। রাসেলের চরিত্রটি সব মিলিয়ে ভালো লাগলেও আমার মনে হয়েছে মাঝে তাকে আরেকটু সময় নিয়ে ডেভোলাপ করলে ভালো হতো। এক পর্যায়ে ভ্রম সমীকরণের প্লটের বিস্তৃতি দেখে মনে হচ্ছিল যে এই ছোট পরিসরে হয়তো কাহিনী ঠিকঠাক পূর্ণতা পাবে না বা হয়তো স্যাটিসফায়িং এন্ডিং পাবো না। তবে সেই আশঙ্কা অমূলক প্রমাণ করে লেখক চমৎকারভাবে সমাপ্তি টেনেছেন। টুইস্টটা বেশ চমকপ্রদ ছিল এবং টুইস্টের ডেলিভারিতেও লেখক মুনশিয়ানা দেখিয়েছেন। যেমনটা বললাম সমাপ্তিতে তাড়াহুড়োর ছাপ ছিল না ঠিকই, তবে টুইস্টের আগের অংশ নিয়ে আরেকটু বর্ণনা পেলে আরও ভালো লাগতো। ভ্রম সমীকরণ বইয়ের প্রোডাকশন ওভারওল ভালোই। রিয়াজুল ইসলাম জুলিয়ানের করা থিমের সাথে মানানসই প্রচ্ছদটা বেশ ভালো লেগেছে।বাঁধাই ও পৃষ্ঠার মান মোটামুটি ভালো ছিল। সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে ডিটাচেবল জ্যাকেট দেওয়ায়। জ্যকেটের নিচেও বইয়ের প্রচ্ছদের কোয়ালিটি দারুণ ছিল। বেশিরভাগ প্রকাশনীই বইয়ের সাথে আঠা দিয়ে জ্যকেট লাগিয়ে দেয় যেটা ব্যক্তিগতভাবে খুবই বিরক্তিকর লাগে কারণ আমি জ্যাকেট খুলে পড়তে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। সর্বোপরি, ভ্রম সমীকরণ এক বসায় পড়ে ফেলার মতো উপভোগ্য ও বেশ ভালো মানের একটি সাই ফাই থ্রিলার উপন্যাসিকা। সাই ফাই আর থ্রিলার পাঠকদের অবশ্যই রেকমেন্ড করব।

  4. 4 out of 5

    তানজীম আহমেদ

    মাই গুডনেস!!! কি পড়লাম এটা? একদমই ডিফ্রেন্ট কিছু। রেটিং দেখেই বুঝতে পারার কথা কতটা উপভোগ করেছি। বিস্তারিত রিভিউ কাল দিবো।

  5. 4 out of 5

    Farhanatul

    আপনি মনস্তাতিক বিষয়গুলো কতটুকু পছন্দ করেন তার উপর নির্ভর করবে বইটি আপনি কিভাবে নিবেন। গল্পের শুরু এবং শেষ খুব ভালো ছিল, মাঝের অংশে ঢিলাভাব আসলেও যারা মনোবিজ্ঞান নিয়ে আগ্রহী তারা উপভোগ করবেন। ব্যক্তিগতভাবে আমার ভালো লেগেছে। কনসেপ্টটা গতানুগতিক থেকে আলাদা ছিলো।

  6. 5 out of 5

    Abdus Sattar Sazib

    ভ্রম সমীকরণ, আমার পড়া প্রথম সাইন্স ফিকশন / সাই ফাই থ্রিলার বই। আমি এর আগে কখনো এই জনরার বই পড়ি নাই। আমার পড়া লেখকের দ্বিতীয় বই এইটি, এর আগে পড়েছি “যে শহড়ে গল্প লেখা বারণ” ‘’ভ্রম সমীকরণ’’ উপন্যাসের প্লটটা ভীষণ ইন্টারেস্টিং এবং একই সাথে বেশ জটিল। তবে, লেখকের গল্প বলার ধরন ছিলো অনেক সুন্দর, যার কারণে জটিল গল্পটা লেখক অনেক সাধারণ ভাবে বলে গেছেন। গল্প বলার ভঙ্গিও বেশ চমৎকার লেগেছে আমার কাছে। বেশ কিছু নতুন শব্দ শিখতে পেরেছি, যার কারনে আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে। কিছু সায়েন্টিফিক টার্ম যেমন: প্রিম ভ্রম সমীকরণ, আমার পড়া প্রথম সাইন্স ফিকশন / সাই ফাই থ্রিলার বই। আমি এর আগে কখনো এই জনরার বই পড়ি নাই। আমার পড়া লেখকের দ্বিতীয় বই এইটি, এর আগে পড়েছি “যে শহড়ে গল্প লেখা বারণ” ‘’ভ্রম সমীকরণ’’ উপন্যাসের প্লটটা ভীষণ ইন্টারেস্টিং এবং একই সাথে বেশ জটিল। তবে, লেখকের গল্প বলার ধরন ছিলো অনেক সুন্দর, যার কারণে জটিল গল্পটা লেখক অনেক সাধারণ ভাবে বলে গেছেন। গল্প বলার ভঙ্গিও বেশ চমৎকার লেগেছে আমার কাছে। বেশ কিছু নতুন শব্দ শিখতে পেরেছি, যার কারনে আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে। কিছু সায়েন্টিফিক টার্ম যেমন: প্রিমোনিশন (ঘটনা ঘটার আগেই পূ্র্বাভাস পাওয়া), ডিএমটি, দেজা ভ্যু, রেম স্লিপ, বেসিক নিউরোফিজিয়োলজি। গল্পের প্রায় পুরোটা জুড়েই ছিল বিজ্ঞানের এমন বেশ কিছু শব্দ আছে, যেগুলো জানতে পারবেন এই বই পড়লে। তবে, সব থেকে ইন্টারেস্টিং ছিল এই গল্পের শেষ টুইস্ট। আর বেশ ঝরঝরে লেখা/গল্প হওয়াতে এক বসায় শেষ করেছি বইটা। যদিও, গল্প পড়া শেষ করে, অধ্যায় উনিশ, বিশ, একুশ আবার পড়েছি। অনেক সুন্দর একটা বই, নিঃসন্দেহে ভীষণ ইন্টারেস্টিং। বইটি পড়ে দেখতে পারেন, আশাকরি ভালো লাগবে। #হ্যাপিরিডিং #বুকরিভিউ #SAZIB2021 #BOOK_REVIEW_BY_SAZIB

  7. 5 out of 5

    Tanim Rahman Papon

    ভ্রম সমীকরণ এর শুরুটা যতোটা সুন্দর ভাবে শুরু হয়েছিল মাঝখানে গিয়ে গল্প ঝুলে গেছে একদম, তবে আবার শেষটা ভালো ছিলো। সবমিলিয়ে খারাপ না। লেখক বেশ সহজ ভাবে গল্প বলছে এবং তার লেখার স্টাইল ভালো।

  8. 4 out of 5

    Aminul IsLaM

    ৩.৫ স্টার।

  9. 5 out of 5

    Rana Khan

    এই রাইটারের নিঃসন্দেহে একটা উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ রয়েছ.... নাহ্ এটা স্বীকার করতেই হবে। এইকথার পেছনে অবশ্যই যুক্তি আছে.... মোহাইমিনুল ভাইয়ের গল্প ছকার হাত যেরকম তার চেয়েও বেশি পারেন জটিল ঘটনাকে অত্যন্ত নির্মল ও ঝরঝরা সাবলীল ভাবে প্রবাহ করতে.... তার লেখক জীবন সম্পর্কে আমি বেশি কিছু জানি না। কিন্তু জানতে পারলাম এই লেখকের একক ভাবে লেখা বইয়ের সংখ্যা মাত্র ৪টি। এটাই সবচেয়ে অবাক করা বিষয় যে, এতো কম লিখে কিভাবে এতো ঝরঝরা হতে পারে একজনের লিখনি..... আবার আসিব ফিরে....❤

  10. 5 out of 5

    Rnmridha

    সহজ ভাষায়, মাথা নষ্ট প্লট এর সেইরকম একটা বই ।Starting ভালো। শেষটাও সুন্দর। কিন্তু মাঝের দিক দিয়ে কাহিনী একটু বেশি ইই ঢিলেঢালা। শেষ এ পড়লে মনে হবে যেন Cristopher nolan এর নেক্সট মুভির স্ক্রিপ্ট।

  11. 4 out of 5

    Joy Sarkar

    মাঝের অংশটুকু বাদ দিলে সুখপাঠ্য একখানা বই। গল্পে গতি এবং থ্রিল দুটোই ছিল। তবে মাঝের অংশে অহেতুক টেনে লম্বা করার চেষ্টা করা হয়েছে। বর্নণা-ভংগী সাবলীল। সায়েন্টিফিকাল টার্ম গুলো বেশ ভালোভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। বিশেষ করে ডিএমটি-এর ব্যাপারটা। সাইকোলজিক্যাল ছোট ছোট কিছু জিনিস লেখক খুব গুছিয়ে উপস্থাপন করেছেন, যেমন মিথ্যে বলার ধরণ এবং কথা বললেই ধরা পড়ার একটা আবহ তৈরী করা। শেষটা ভালো ছিল। তবে সামান্য নোলান এর সিনেমা সিনেমা আবহ তৈরী হয়েছে, এর জন্য লেখক আলাদা করে বাহবা পেতেই পারেন। হ্যাপী রিডিং :)

  12. 4 out of 5

    Ghumraj Tanvir

    Fantastic book... Writer again hit the bullseye....

  13. 5 out of 5

    আবিদ জয়

    ধরুন, খুব শীঘ্রই একটি খুন হতে যাচ্ছে। একজন সুনামধন্য ব্যক্তির খুন৷ আর আপনাকে খুনটি আটকাতে হবে। আপনি কোন পুলিশ সদস্য নন। কিংবা কোন সিক্রেট ইন্টেলিজেন্স সার্ভিসের এজেন্ট ও নন, যে আপনাকে গোপনীয়তার সাথে ইনফরমেশনটি দেওয়া হয়েছে। বরং খুনের ব্যাপারটি আপনি জানতে পেরেছেন এক অদ্ভুত ক্ষমতার মাধ্যমে। ভবিষ্যৎ দেখবার ক্ষমতা। বিজ্ঞানের ভাষায় যাকে বলা হচ্ছে, প্রিমোনিশন। ঠিক এরকম ঘটনাই ঘটে চলছে এই উপন্যাসের প্রধান চরিত্র রাসেলের সাথে। পুরো উপন্যাস জুড়ে রাসেল তার এই অদ্ভুত ক্ষমতার গল্প বলে যাবে। প্রিমোনিশনের ধরুন, খুব শীঘ্রই একটি খুন হতে যাচ্ছে। একজন সুনামধন্য ব্যক্তির খুন৷ আর আপনাকে খুনটি আটকাতে হবে। আপনি কোন পুলিশ সদস্য নন। কিংবা কোন সিক্রেট ইন্টেলিজেন্স সার্ভিসের এজেন্ট ও নন, যে আপনাকে গোপনীয়তার সাথে ইনফরমেশনটি দেওয়া হয়েছে। বরং খুনের ব্যাপারটি আপনি জানতে পেরেছেন এক অদ্ভুত ক্ষমতার মাধ্যমে। ভবিষ্যৎ দেখবার ক্ষমতা। বিজ্ঞানের ভাষায় যাকে বলা হচ্ছে, প্রিমোনিশন। ঠিক এরকম ঘটনাই ঘটে চলছে এই উপন্যাসের প্রধান চরিত্র রাসেলের সাথে। পুরো উপন্যাস জুড়ে রাসেল তার এই অদ্ভুত ক্ষমতার গল্প বলে যাবে। প্রিমোনিশনের মাধ্যমে কখনো সে খুন হওয়ার মত ভয়ংকর ঘটনার ভবিষ্যত দেখতে পারছে। আবার কখনো দেখতে পারছে স্বাভাবিক কোন ঘটনা। কিন্তু এই রহস্যের জাল থেকে সে কিছুতেই বের হতে পারছে না। কেন তার সাথেই এসব হচ্ছে? কি জন্য হচ্ছে? আরো অসংখ্য প্রশ্ন আঁকড়ে ধরছে তাকে৷ এক সময় সে এই রহস্য উদঘাটনের পেছনে হন্যে হয়ে ছুটতে থাকে। যার জন্য ভয়ংকর কিছু কাজ করতেও সে পিছ পা হয় না। কিন্তু শেষ অব্দি কি সে উদঘাটন করতে পারবে এই রহস্য? এই কঠিন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই পাঠককে অপেক্ষা করতে হবে মাত্র ৯৪ পাতার এই ছোট্ট বইটার শেষ পাতা অব্দি। পাঠ প্রতিক্রিয়া - উপন্যাসের প্লটটা ভীষণ ব্যতিক্রমধর্মী। সাধারণ কোন সায়েন্স ফিকশন নয়। বরং অসাধারণ এবং একই সাথে বেশ জটিল প্লট। শেষের দিকে কিছু অধ্যায় পড়তে গিয়ে মনযোগ বাড়াতে হয়েছে। আমার কাছে মনে হয়েছে লেখক জটিল বিষয়গুলো সহজ করে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে। তবে হ্যাঁ, কারো কাছে ব্যাপারগুলো কঠিন ও মনে হতে পারে। বইটা ছোট। মাত্র ৯৪ পাতা। প্রথম অধ্যায় থেকেই কৌতুহল শুরু হয়েছিল, এবং কৌতুহল শেষ অব্দি ধরে রাখতে লেখক আবারো সক্ষম হয়েছে। শেষের দিকে যখন পৌছালাম তখন একবার মনে হল কৌতুহল সব এখানেই শেষ। বইটাও ধীরে ধীরে শেষ হতে যাচ্ছে। কিন্তু শেষটা মনের মত হচ্ছে না। জটিল জটিল সব ব্যাখ্যায় উপন্যাসের শেষটা ধীরে ধীরে সাদামাটা হয়ে উঠছে। ঠিক তখন শেষ পাতায় এসে রীতিমতো আঁতকে উঠতে হলো৷ মনে মনে শুধু বললাম, এতক্ষণ ধরে কি ভাবলাম, কি পড়লাম আর শেষে এসে কি হইল এইটা!! 😅 প্লটের বাইরে কিছু ভাল লাগার দিক বলি, এর আগেও লেখকের একটি বই পড়েছিলাম। তার একটি গুণ খুব ভাল লেগেছিল। এই বইটিতেও সেই গুণটি তিনি ধরে রেখেছেন। লেখক গল্পের ছলে পাঠকদের জন্য দিয়ে গেছেন ছোটখাটো অনেক ইন্টারেস্টিং তথ্য। যেমন- দেজা ভ্যু, প্রিমোনিশন, ডিএমটি, রেপিড আই মুভমেন্ট ইত্যাদি। একটি উপন্যাসের বই শুধু মাত্র ভাল সময় কাটানোর জন্য কিংবা আনন্দের জন্য নয়। বরং আউট নলেজ বাড়ানোর একটা গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম, তা লেখক আবারো বুঝিয়ে দিয়েছে। নেতিবাচক দিক- আমি রিভিউ দিচ্ছি সাধারণ পাঠক হিসেবে। আমার কাছে বইটি পড়ে অযৌক্তিক কিছু চোখে পড়েনি। তাই এরকম কিছু উল্লেখ করতে পারছি না। তবে হ্যাঁ ব্যক্তিগত ভাবে অনেকেরই কিছু দিক খারাপ লাগতে পারে, তবে শেষ অব্দি পড়ে যদি পাঠক সন্তুষ্ট হয়, তাহলে সেই খারাপ লাগা দিকটা আর নজরে আসে না। আমার ক্ষেত্রেও তাই। আমি বইটি পড়ে সন্তুষ্ট। সব শেষে এই বইয়ে উল্লেখিত একটি সুন্দর কবিতার লাইন দিয়ে আমার রিভিউ শেষ করছি, অল উই সিন অর সিম ইজ বাট আ ড্রিম উইদিন আ ড্রিম.... বই- ভ্রম সমীকরণ জনরা- সায়েন্স ফিকশন লেখক- মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী প্রচ্ছদ- জুলিয়ান প্রকাশকাল- ডিসেম্বর ২০২০ প্রকাশনী - চিরকুট মলাট মূল্য - ১৫০ /-

  14. 4 out of 5

    রায়হান রিফাত

    অসাধারণ পড়ে ফেলেন , নতুন অনেক কিছু জানতে পারবেন ♥

  15. 5 out of 5

    Sudipto Modak

    এই বইটি আরো অনেক আলোচনা-সমালোচনা ডিজার্ভ করে। দুর্দান্ত। কোনো রকম প্রিকন্সিভড নোশন ছাড়া শুরু করলে দুর্দান্ত ভালো সময় কাটাতে পারবে পাঠক। লেখককে সেলাম।

  16. 4 out of 5

    Mahmudul Hasan

    ভ্রম সমীকরণের গল্পটা খুবই স্বল্প পরিসরে একটা চরিত্রের দৃষ্টিকোণ থেকে লেখা। লেখনী বেশ ঝরঝরে ছিল তাই এক বসায় পড়ে শেষ করার মতো। তবে সায়েন্স, ফিলোসফি এবং সাইকোলজির যে জটিল টার্মগুলো নিয়ে লেখক কাজ করেছেন সেগুলোর একেকটা নিয়েই হাজার পাতা অ্যানালাইসিস করা সম্ভব! সায়েন্স ফিকশন ঠিক বলবো না বইটাকে, কিন্তু এক অর্থে পুরো বইটাই সায়েন্সের এক্সপ্লানেশন। সবমিলে মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পীর বইটা পড়তে ভালোই লেগেছে আমার। বইয়ের শেষে কোনো কোনো পাঠক হয়তো প্রতারিত বোধ করতে পারেন। এমন ইজি-ওয়ে-আউট সমাধান কেন দেওয়া ভ্রম সমীকরণের গল্পটা খুবই স্বল্প পরিসরে একটা চরিত্রের দৃষ্টিকোণ থেকে লেখা। লেখনী বেশ ঝরঝরে ছিল তাই এক বসায় পড়ে শেষ করার মতো। তবে সায়েন্স, ফিলোসফি এবং সাইকোলজির যে জটিল টার্মগুলো নিয়ে লেখক কাজ করেছেন সেগুলোর একেকটা নিয়েই হাজার পাতা অ্যানালাইসিস করা সম্ভব! সায়েন্স ফিকশন ঠিক বলবো না বইটাকে, কিন্তু এক অর্থে পুরো বইটাই সায়েন্সের এক্সপ্লানেশন। সবমিলে মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পীর বইটা পড়তে ভালোই লেগেছে আমার। বইয়ের শেষে কোনো কোনো পাঠক হয়তো প্রতারিত বোধ করতে পারেন। এমন ইজি-ওয়ে-আউট সমাধান কেন দেওয়া হলো সেটা নিয়ে প্রশ্ন তুলতেই পারেন। ব্যাপারটা নিতান্তই ব্যক্তিগত মূল্যায়ন। তবে আমার মতে, লেখক যেই সমস্ত টপিকের বুননে মূল গল্প সাজিয়েছেন, সীমিত পরিসরে হলেও, তাতে তেমন কোনো অসঙ্গতি নেই। এছাড়াও, লেখার জনরা এবং স্ট্যাইল এমন যে সব বয়সের পাঠকই সহজে আকর্ষিত হবে। জুলিয়ান সাহেব বইয়ের প্রচ্ছদও করেছেন মানানসই। তবে পেছনের পাতায় মান্ডালা-চক্ষু ধাঁচের ডিজাইনটার অর্থ অপরিষ্কার। স্পয়লার আলোচনা (view spoiler)[ ★ বইটা শেষ করা মাত্রই পাঠক বুঝবেন আমি কেন এটাকে সাই-ফাই বলছি না। আদতে এটা জ্যাকব'স ল্যাডারের মতো সাইকোলজিকাল থ্রিলার। নিজের নির্মম পরিণতি ব্রেইন মেনে নিতে না পেরে একটা এলাবোরেট রিয়েলিটি বানিয়ে ফেলেছে। ★ স্বপ্ন আমরা কেন দেখি এ নিয়ে বহুযুগ ধরে গবেষণা চলে আসছে। অনেকে বলেন, স্বপ্নের মাধ্যমে অল্টারনেট রিয়েলিটি পর্যন্ত অ্যাক্সেস করা সম্ভব। আবার স্বপ্ন বা ধ্যানের সময়ে অ্যাস্ট্রাল প্রোজেকশন করে দেহ ছেড়ে অন্যস্থানে চলে যাবার ঘটনাও ঘটেছে আগে। কে জানে, আমাদের পুরো জীবনটা হয়তো অন্য কারো স্বপ্ন! লালনের ভাষ্যে, পুরোটাই মায়ার খেলা। ★ ডিএমটি ড্রাগের মাধ্যমে ইনসেপশন স্টাইলে তিন লেভেলের স্বপ্ন দেখার সাথে কাহিনীটা সুন্দর সাজিয়েছেন লেখক। রাসেল যখন ম্যামথ দেখে তখন সেটা ফার্স্ট লেভেল, যখন বেঁচে গিয়ে তার জীবনযাপন করতে থাকে সেটা সেকেন্ড লেভেল, আর মাঝে মাঝে প্রিমোনিশন দেখার ব্যাপারটা থার্ড। ★ সাতজন বৈজ্ঞানিক মিলে নিউরোনেট বানানোর ব্যাপারটা লেখক খুব বেশি বিস্তৃত করেননি, এটা নিয়েই আলাদা উপন্যাস লেখা সম্ভব। কোনো পাঠক এ ধরনের বই পড়তে চাইলে ফিলিপ কে ডিকের মাইনোরিটি রিপোর্ট পড়ে দেখতে পারেন। ★ বইয়ের মাঝ বরাবর গিয়ে বারবার ফাইনাল ডেস্টিনেশন স্টাইলে প্রিমোনিশন দেখে বেঁচে যাবার ব্যাপারটা সামান্য গৎবাঁধা লেগেছে। (hide spoiler)]

  17. 5 out of 5

    Rayan Afif

    ভ্রম সমীকরণঃপাঠ প্রতিক্রিয়া৷ লেখকঃ মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী প্রচ্ছদশিল্পীঃ জুলিয়ান কভার মূল্যঃ ৯৬ প্রকাশকঃ চিরকুট প্রকাশনী। কেমন হবে যদি জানতে পারেন, আপনার বুদ্ধিমত্তা আপনার আশেপাশের মানুষজনের চাইতে বেশী৷ আপনি জানতে পারেন বা আন্দাজ করতে পারেন আশেপাশের অনেককিছু অনেক আগে থেকেই৷ জ্বী বলছি, ভ্রম সমীকরণের কথা। ভ্রম সমীকরণ, মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পীর একটি বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনি যা মাত্র ৯৬ পৃষ্ঠার কলেবরে গড়ে উঠেছে। রাসেল নামের এক কিশোর নবম শ্রেণীতে পড়ে যে, যার বুদ্ধিমত্তা আমার আপনার স্বাভাবিক ও সাধারণ ম ভ্রম সমীকরণঃপাঠ প্রতিক্রিয়া৷ লেখকঃ মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পী প্রচ্ছদশিল্পীঃ জুলিয়ান কভার মূল্যঃ ৯৬ প্রকাশকঃ চিরকুট প্রকাশনী। কেমন হবে যদি জানতে পারেন, আপনার বুদ্ধিমত্তা আপনার আশেপাশের মানুষজনের চাইতে বেশী৷ আপনি জানতে পারেন বা আন্দাজ করতে পারেন আশেপাশের অনেককিছু অনেক আগে থেকেই৷ জ্বী বলছি, ভ্রম সমীকরণের কথা। ভ্রম সমীকরণ, মোহাইমিনুল ইসলাম বাপ্পীর একটি বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনি যা মাত্র ৯৬ পৃষ্ঠার কলেবরে গড়ে উঠেছে। রাসেল নামের এক কিশোর নবম শ্রেণীতে পড়ে যে, যার বুদ্ধিমত্তা আমার আপনার স্বাভাবিক ও সাধারণ মানুষদের চেয়ে অতিমাত্রায় বেশী এবং তা কি না আইনস্টাইন কিংবা অন্যান্য বড় বড় বিজ্ঞানীর মত। কেন্দ্রীয় চরিত্র রাসেল খন্দকারকে ঘিরেই মূল কাহিনী আবর্বিত হওয়ায় অন্য চরিত্রগুলো তেমন চরিত্রায়নের সুযোগ পায় নি, কারণ এখানে রাসেলই মূল চরিত্র ও সকল ঘটনার কার্যকারণ,উৎপত্তি, ফলাফল তার জন্যেই হয়ে থাকে৷ তবে জিব্রাণ আহমেদ চরিত্রটাও আমার বেশ ভালো লেগেছে৷ ৯৬ পৃষ্ঠার ছোট এক বসায় পড়ার মত উপন্যাস হিসেবে এতে পূর্ণাঙ্গ থ্রিলারের যা যা থাকা দরকার যেমনঃ টুইস্ট,গ্রহণযোগ্য সমাপ্তি ও মেদহীন বর্ণনা সবই রয়েছে পর্যাপ্তভাবে৷ একই সাথে বিজ্ঞানের অতি জটিল টার্মগুলোও লেখক সকল শ্রেণীর পাঠকের উপভোগ্য করে তুলেছেন৷ আরেকটা ভালো দিক হলো, বানান ভুল একদমই চোখে পড়ে নি৷ বাঁধাই, মূদ্রণও বেশ ভালো ছিল৷ আর প্রচ্ছদটাও খাপে খাপ মিলেছে, এক্ষেত্রে জুলিয়ানকে ধন্যবাদ এমন প্রচ্ছদের জন্যে। আর নতুন প্রকাশক হিসেবে বইয়ের প্রোডাকশনও ভালো হয়েছে চিরকুটের৷ আমার রেটিংঃ ৪/৫

  18. 4 out of 5

    Dewan Hasibul Hasan

    গল্পটা ভাল।। তবে বড় গল্প হিসেবে। উপন্যাস হিসেবে না। লেখক নিজেও সম্ভবত সেটা জানতেন। মাঝের দিকে শুধু টেনে লম্বা করেছেন উপন্যাস বা উপন্যাসিকা হিসেবে চালিয়ে দেওয়ার জন্য। ফলাফল, সুন্দর হাইওয়ের মত রাস্তা সরু হতে হতে বাঁশের সাঁকোতে পরিণত হয়েছে, অতিক্রম করাই কষ্টকর। রেখেই দিয়েছিলাম। কি মনে করে আবার শুরু করলাম। শেষটা যথেষ্ট ভাল ছিলো। কিন্তু মাঝের বৃহৎ অগোছালো আর অপ্রয়োজনীয় শব্দমালার কারণে বইটি সার্থকতা হারিয়েছে।

  19. 4 out of 5

    Saif Ahmed

    অল্প কথায় বলতে গেলে সায়েন্স ফিকশন ও থ্রিলারের পার্ফেক্ট ব্লেন্ড৷ কেন যেন মনে হয়েছিল আরেকটু দীর্ঘ হলে আরও বেশী ভালো লাগতো৷ তবে ছোট আকারের হলেও, সব দিক থেকেই যথার্থ ছিল

  20. 4 out of 5

    Md Nafiul

    🔰ভ্রম সমীকরণ ⚫সাইন্স ফিকশন/সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার ছোট মরিচে ঝাল বেশি! এই বইটিও ঠিক সেরকম। সাইন্স ফিকশন জনরার বইটি প্রিমোনিশেন কন্সেপ্ট বেসড,যেখানে রাসেল নামক এক বুদ্ধিদীপ্ত কিশোর এর গল্প বলা হয়েছে। বেশ কিছু সাইন্টেফিক থিওরির চমৎকার ব্যাখ্যা,সুন্দর লেখনী এবং সেই সাথে পার্ফেক্ট এন্ডিং এর জন্য বইটি অসাধারণ হয়ে উঠে। ৯৬ পৃষ্ঠার ছোট বইটি একবসায় পড়ে ফেলার মতন। 🖤

  21. 4 out of 5

    Wasif M

  22. 4 out of 5

    Asif Abdullah

  23. 4 out of 5

    Mahfuj

  24. 5 out of 5

    Mohammed Minhazz

  25. 4 out of 5

    Wasee

  26. 4 out of 5

    Farhin Binte Islam Audri

  27. 4 out of 5

    Raisul Likhon

  28. 5 out of 5

    Rifah Sanjida

  29. 5 out of 5

    Himu Himalay

  30. 5 out of 5

    Maliha

Add a review

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading...
We use cookies to give you the best online experience. By using our website you agree to our use of cookies in accordance with our cookie policy.